Breaking News

বিজ্ঞানের যে ১৫ টি বিষয় আমরা জানিনা

বিজ্ঞানের নতুন কিছু বিষয় আছে যা আমরা জানিনা। পৃথিবীতে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন বিষয় তৈরি হচ্ছে যার অনেক কিছুই আমরা জানিনা। আমাদের অজানা বিজ্ঞানের এমন কিছু বিষয় আজ আমরা জেনে নিব।

১। ফুসফুস শুধু শ্বসনের কাজই করেনা তারা রক্ত উৎপাদনের কাজ ও করে। স্তন্যপায়ীর ফুসফুস প্রতি ঘন্টায় ১০ মিলিয়নেরও বেশি প্লেটলেট উৎপন্ন করে, যা শরীরে সংবাহিত হওয়া অধিকাংশ প্লেটলেট এর সমান।

২। গাণিতিকভাবে টাইম মেশিন তৈরি করা সম্ভব, যার মাধ্যমে অতীতের উপাদানগুলোকে খুঁজে পাওয়া যাবে।

৩। সাইবেরিয়ার পারমাফ্রস্ট গলতে শুরু করেছে। ভুগর্ভস্থ চির হিমায়িত অঞ্চলকে পারমাফ্রস্ট বলে।

৪। বিশ্বের প্রথম আধা সিনথেটিক জীব আমাদের মধ্যেই বসবাস করছে। বিজ্ঞানীরা একটি নতুন ৬ অক্ষরের জেনেটিক কোড ব্যবহার করে এর উত্থান ঘটিয়েছেন।

৫। বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে সবচেয়ে কালো উপাদান হচ্ছে ভেন্টাব্লেক। এটি এ বছরই মানুষের হাতের নাগালে আসছে স্প্রে হিসেবে।

৬। টাইম ক্রিস্টাল তৈরি করা এখন শুধু সময়ের বিষয়। এই অসম্ভব বস্তুটি তৈরি করার নীল নকশা এখন আছে আমাদের হাতেই।

৭। মানুষের শরীরে একটি নতুন অঙ্গ শনাক্ত হয়েছে, আর তা হচ্ছে মেসেন্টেরি।

৮। ইঁদুরের মস্তিষ্কে এমন একটি দৈত্যাকার নিউরন শনাক্ত হয়েছে যা স্তন্যপায়ীর চেতনার সাথে সম্পর্কিত বলে মনে হয়।

৯। পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন ও বিরল কুকুরটি আসলে বিলুপ্ত হয়ে যায়নি। নিউ গিনির সুদর্শন বন্য কুকুরের মধ্যে এটি লুকিয়ে আছে।

১০। আক্কেল দাঁতের মত মানুষের অ্যাপেন্ডিক্স অপ্রয়োজনীয় নয়। এর গুরুত্বপূর্ণ জৈবিক কাজ আছে বলে জানা যায়।

১১। ১৩০ বছর পরে হলেও ডায়নোসরের ফেমিলি ট্রি টি সম্পূর্ণভাবে আঁকা সম্ভব হবে। এর জন্য ধন্যবাদ জানাতে হয় স্কটল্যান্ডে পাওয়া বিড়াল আকৃতির জীবাশ্মকে।

১২। পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম ডিম্বাশয়ে নয় শুরু হয় মস্তিষ্কে।

১৩। পৃথিবীতে একটি সম্পূর্ণ নতুন মহাদেশ তৈরি হচ্ছে যার নাম জিয়ালেন্ডিয়া।

১৪। পৃথিবীর ভূতত্ত্বের উপর মানুষের বড় প্রভাব ছিল। বিজ্ঞানীরা একটি নতুন ভূতাত্ত্বিক যুগ অ্যানথ্রোপসিন এর আহবানের কথা বলছেন।

১৪। বৃহৎ তিমি যা সমুদ্রের মূল্যবান ইউনিকর্ণ। এটি শিকারের জন্য তাদের সিং ব্যবহার করে, কিন্তু আপনি যেভাবে ভাবছেন সেভাবে নয়।

১৫। আমাদের গ্রহের চারপাশের স্থান পরিবর্তিত হয়েছে। কয়েক দশকের খুবই নিম্ন কম্পাংকের তরঙ্গ যোগাযোগ এর মাধ্যমে আকস্মিকভাবে পৃথিবীর চারপাশে মানুষের তৈরি বুদবুদ এর সুরক্ষা আবরণ তৈরি করেছে।