Breaking News

ত্রিভুজ প্রেমের বলি হলো কলেজছাত্র রওনক

ত্রিভুজ প্রেমের বলি হলো পুরাণ ঢাকার শাঁখারিবাজারের কলেজ ছাত্র রওনক হাসান। গত ১ মার্চ হলী উৎসবের সময় তার পরিচিত জনেরা ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রিয়াজ আলম ওরফে ফারহান, ফাহিম আহাম্মেদ ওরফে আব্রো, ইয়াসিন আলী, আলামিন ওরফে ফারাবি খান ও লিজা আক্তার মাইসা। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহারিত একটি চাকু উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত রওনক আজিমপুর নিউ পল্টন লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল। তার বাবার নাম শহীদ মিয়া। তার বাড়ি কামরাঙ্গীরচরে।

আজ মঙ্গলবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে লালবাগ বিভাগের উপকমিশনার ইব্রাহিম খান বলেন, প্রেমের ঘটনার জের ধরে রওনককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। রওনকের সাথে মাইসা নামের এক তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই সম্পর্ক ছিন্ন করে রওনক তুহু নামের আরেক তরুণীকে পছন্দ করতে থাকে। তুহুর সাথে আরেক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই ছেলে বিষয়টি জানার পর রওনককে খুন করার পরিকল্পনা নেয়। ১ মার্চ লক্ষ্মীবাজারের কেএফসির সামনে তারা একত্রিত হয়। এসময় রওনককে বাসা থেকে ডেকে আনার জন্য মাইসাকে কাজে লাগায়। ওইদিন দুপুরে শাঁখারিবাজারে হলী উৎসবের কাছে রওনক ও মাইসা দেখা করে। এসময় তুহু’র প্রেমিক ও ৪-৫জন ছেলে সহ রওনকের সাথে ইচ্ছা করে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়ে। তারা রওনককে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে নেয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করে।